মহিলাদের মাসিক ঋতুস্রাব কদর রাত পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধক নয়। তাই ঋতুবতি মহিলাগণ এ রাতে নামায, কুরআন তিলাওয়াত ও কাবা শরীফের ত্বওয়াফ ছাড়া অন্যান্য সকল প্রকার ইবাদত করতে পারে।

যেমন,বেশি বেশি দরুদে ইব্রাহীম পাঠ করা,
তাসবীহ, যিকর-আযকার, যেমন, “লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ”, “আল্ হামদু ল্লিল্লাহ” “সুবহানাল্লাহ”, “আল্লাহুআকবার” “আস্তাগফিরুল্লাহ”, “লা হাওলা ওয়ালা কুউআতা ইল্লা বিল্লাহ”।

দুআ-মুনাজাত, বিশেষ করে “আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আফুউন তুহিব্বুল্ আফওয়া ফা’ফু আন্নী” দুআটি বেশী বেশী পাঠ করবে।

হাদিসে আছে, মা আয়েশা নবী (সাঃ) কে জিজ্ঞাসা করেনঃ হে আল্লাহর রাসূল! যদি আমি লাইলাতুল কদর লাভ করি, তাহলে কি দুআ করবো? তিনি (সাঃ) বলেনঃ বলবে, *আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আফুউন তুহিব্বুল্ আফওয়া ফা’ফু আন্নী”।* অর্থ, হে আল্লাহ! তুমি ক্ষমাশীল। ক্ষমা পছন্দ কর, তাই আমাকে ক্ষমা কর”।[আহমদ,৬/১৮২]

অনুরূপভাবে তারা কুরআন তিলাওয়াত শ্রবন, কুরআনের তাফসীর পাঠ (আয়াতগুলোর আরবী বাদ দিয়ে),
হাদীস পাঠ, ইসলামী বই-পুস্তক পাঠ
দান-সদকা ইত্যাদি ইবাদতগুলো করার চেষ্টা করবে।
আল্লাহ তাওফিক দান করুন।

উত্তর প্রদানে—-
~শায়খ আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।।

By Anonto Rajan

রবের প্রতি বিশ্বাস সবসময়...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *