আল্লাহভীরু বৃদ্ধ ও তার মোজার গল্প
এক ধনী আর আল্লাহভীরু বৃদ্ধ লোক একদিন নিজের সন্তানকে ডেকে বলল: আমার বয়স হয়েছে, যেকোন দিন আমাকে চলে যেতে হবে আল্লাহ’র কাছে। আমার একটা শেষ অনুরোধ আছে তোমার কাছে, আমি মারা গেলে গোছলের পর যখন কাফন পরানো হবে, আমার পুরাতন মোজা গুলো আমাকে পরিয়ে দিও। ছেলে বলল: এটাতো কোন বড় চাওয়া না। আমি তোমার শেষ ইচ্ছা পুরন করব। এর কিছুদিন পর লোকটি মারা গেল। আত্মীয়, পড়শী সবাই আসল শেষবারের মত দাফনে অংশ নিতে। কাফন পরানো শেষ হলে শোকে কাতর ছেলের হঠাৎ মনে হল বাবা’র শেষ ইচ্ছের কথা, আর তখনি বাবার পুরাতন মোজা খুজে নিয়ে আসলো। কিন্তু মোজা পরাতে সবাই বাধা দিল। সবাইকে অনেক অনুরোধ করলেও কেউ রাজী হলনা না। কারণ তিন টুকরা সাদা কাপড় ছাড়া আরকিছু দেয়া মুসলমানদের দাফনের নিয়মে নেই। কিন্তু ছেলে অনড় বাবার ইচ্ছা পুরনে। এমনসময় তার বাবা’র এক বন্ধু এগিয়ে এসে ওকে বলল: গতকাল তোমার বাবা আমাকে একটা চিঠি দিয়ে বলেছিল, সে মারা গেলে আমি যেন এটা তোমাকে জানাজা’র সময় দেই। ছেলে অবাক হয়ে চিঠি নিল আর পড়তে লাগল…. “… আমি আমার সব সম্পদ ছেড়ে চলে গেলাম। আমি জানি তুমি এখন আমার শেষ ইচ্ছা পুরণ করতে চেষ্টা করছ। কিন্তু শত চেষ্টা করেও তুমি আমাকে একটা পুরোনো মোজা দিতে পারলেনা!! এটাই নিয়ম। একদিন তোমাকেও আমার মত সব সম্পদ, আত্মীয়, বন্ধু সবাইকে ছেড়ে আসতে হবে- সেদিন তুমিও শুধু তোমার ভাল কাজ আর আল্লাহর হুকুম যা তুমি পালন করবে সেগুলো নিয়ে আসতে পারবে। এছাড়া একটা মোজাও আনতে পারবেনা। নিজের নফসের অনুুসরণ করোনা, আল্লাহ’র সন্তুষ্টি’র চেষ্টা করলে- উভয় জীবনই সন্মানিত হবে। নামাজ বাদ দিও না আর মনে রেখো গরীব,ইয়াতীমদেরও তোমার সম্পদে হক আছে।” . হে আল্লাহ্! আপনি আমাদের সবাইকে ইসলামের পথে চলার তৌফিক দান করুন। (আমিন)

By Anonto Rajan

রবের প্রতি বিশ্বাস সবসময়...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *