ঝালকাঠিতে দাফন করার ২১ বছর পরেও অক্ষত অবস্থায় একটি মরদেহ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অসংখ্য মানুষ ওই মৃতদেহ দেখতে ভিড় করছেন।
জানা যায়, ঝালকাঠি সদর উপজেলার গাবখান ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের চরকাঠি গ্রামের মো. মুজাফফর আলী হাওলাদার ২১ বছর আগে মারা যান। বিষখালী নদীর তীরবর্তী বাড়ির পাশে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর মৃতদেহ দাফন করা হয়। গ্রামটি নদীগর্ভে বিলিন হওয়ার উপক্রম হয়েছে। তাই মঙ্গলবার সকালে মৃত মুজাফফর আলী হাওলাদারের সন্তানরা তাঁর কবর স্থানান্তরের উদ্যোগ নেন। কবরটি খুঁড়লে তাতে দেখা যায়, মৃত ব্যক্তির দাফনের কাপড় যেমন ছিল সেরকম আছে। এমনকি মৃত্যু দেহটিও অক্ষত আছে। শুধু চামড়াগুলো হাড়ের সাঙ্গে মিশে গেছে।
মো. মুজাফফর আলী হাওলাদারের ছেলে মো. আবুল বাশার বলেন, আমার মা তিন মাস আগে মারা যান। বাবার কবরটি নদীতে ভেঙে যাওয়া উপক্রম হওয়ায় মায়ের কবরের কাছে বাবা কবরটি স্থানন্তর করতে চেয়েছি। কিছু দিন আগে আমার এক ভাই স্বপ্নে দেখেন বাবার কবর অন্য স্থানে স্থানন্তর করার। তাই মঙ্গলবার সকালে কবর খুঁড়তে যাই। কবর খুঁড়ে দেখি দাফনের কাপড় যেমন ছিল তেমনি আছে। সাথে দেহ অক্ষত আছে। আমরা পুনরায় বাবার লাশ মায়ের কবরের পাশে দাফন করেছি।
গাবখান ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা মো. কামরুল ইসলাম বলেন, সকাল থেকে অলৌকিক এ ঘটনাটি দেখতে শত শত উৎসুক জনতা ভিড় করে।

By Anonto Rajan

রবের প্রতি বিশ্বাস সবসময়...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *